স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে

650.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913639

>> সারাদেশে ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয় !

>> ডেলিভারি খরচ ঢাকার মধ্যে ৬০ ঢাকার বাইরে  ১০০ টাকা !

>> প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে চেক করে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন !

>> ডেলিভারি খরচ সাশ্রয় করতে একসাথে কয়েকটি প্রোডাক্ট অর্ডার করুন !

305 in stock

SKU: ( ,53, ) পেটের ফাটা দাগ দূর করার ক্রিম Categories: , Tag:

Description

স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে , প্রিয় পাঠক আজকের  আর্টিকেলটিতে আমরা আলোচনা করব স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে তাই আমাদের আর্টিকেলটি পড়ে আপনি জানতে পারবেন স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে বিস্তারিত তথ্য তাহলে চলুন দেরি না করে এখনি জেনে নেয়া যাক ।

আর্টিকেলটিতে আমরা কিছু  প্রডাক্ট তুলে ধরেছি প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপন পিকচার তুলে ধরেছে আপনি চাইলে প্রোডাক্টগুলো দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে অর্ডার করে সংগ্রহ করতে পারেন । প্রডাক্ট কেনার জন্য সরাসরি ফোন নম্বরে যোগাযোগ করুন অথবা অডার অপশনে অর্ডার করুন ।

স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে

মৃত ব্যক্তির সম্পত্তি বণ্টনের আগে সেই সম্পত্তি থেকে কিছু দায় আগে মেটাতে হয়। যার মধ্যে রয়েছে- মৃত ব্যক্তির দাফন সংক্রান্ত ব্যয়ভার মেটানো, মৃত ব্যক্তির কোনো ধার-দেনা তথা ঋণ (স্ত্রীর মোহরানাসহ) থাকলে তা পরিশোধ করা এবং মৃত ব্যক্তি দান ও ওসিয়ত বা উইল করে থাকলে তা সম্পত্তি থেকে মেটানো। তবে উইলের ক্ষেত্রে এর পরিমাণ মোট সম্পত্তির এক তৃতীয়াংশের বেশি হবে না। এসব বিষয় মেটানোর পর বাকি সম্পত্তি মৃত ব্যক্তির উত্তরাধিকারদের মধ্যে বণ্টন হবে। ইসলামে উত্তরাধিকারের ক্ষেত্রে দুটি শ্রেণি রয়েছে। যার মধ্যে প্রথম শ্রেণি হচ্ছে- শেয়ারার বা অংশীদার। এ শ্রেণিতে রয়েছে ১২ জন ওয়ারিশ, মৃত ব্যক্তির সম্পত্তিতে যাদের অংশ নির্ধারিত। এ শ্রেণির ওয়ারিশরা হচ্ছেন- স্বামী, স্ত্রী, বাবা, মা, দাদা, দাদী, বোন, কন্যা, ছেলের কন্যা, বৈমাত্রেয় বোন, বৈপিত্রেয় ভাই ও বৈপিত্রেয় বোন। অপরদিকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে আছেন রেসিডুয়ারি, আসাবা বা অবশিষ্টভোগী। অবশিষ্টভোগী হয়ে থাকে, প্রথমত, মৃত ব্যক্তির নিজের সন্তান তথা ছেলে ও কন্যা। দ্বিতীয়ত, পূর্ববর্তী বংশধর যথা বাবা, দাদা। তৃতীয়ত, বাবার বংশধর তথা ভাই, বোন, বৈমাত্রেয় বোন, বৈমাত্রেয় ভাই, ভাইয়ের ছেলে, বৈমাত্রেয় ভাইয়ের ছেলে, বৈমাত্রেয় ভাইয়ের ছেলের ছেলে, ভাইয়ের ছেলের ছেলে। চতুর্থত, দাদার বংশধর তথা চাচা, বৈমাত্রেয় চাচা, চাচার ছেলে, বৈমাত্রেয় চাচার ছেলে, চাচার ছেলের ছেলে, বৈমাত্রেয় চাচার ছেলের ছেলে, আরও দূরবর্তী বংশধর। এ তালিকা থেকে বুঝা যায় স্থান ভেদে একই ধরনের ওয়ারিশ কখনো শেয়ারার বা রেসিডুয়ারি হতে পারে।

মৃত ব্যক্তি যদি বিবাহিত নারী হন এবং তার স্বামী জীবিত থাকলে তিনি নির্ধারিত হারে সম্পত্তি পাবেন। সেক্ষেত্রে মৃত ব্যক্তির ছেলে-মেয়ে থাকলে স্বামী পাবেন (১/৪) এক চতুর্থাংশ। অপরদিকে যদি সন্তান না থাকে তবে স্বামীর অংশ হবে মোট সম্পত্তির (১/২) অর্ধেক।বিবাহিত পুরুষ তার স্ত্রী রেখে মারা গেলে তার স্ত্রী নির্ধারিত হারে সম্পত্তির উত্তরাধিকার হবেন। যদি মৃত ব্যক্তির সন্তান থাকে তবে স্ত্রী পাবেন (১/৮) এক অষ্টমাংশ। আর সন্তান না থাকলে স্ত্রী পাবেন (১/৪) এক চতুর্থাংশ। একাধিক স্ত্রী থাকলেও এ অংশ বাড়বে না বরং স্ত্রীরা সবাই মিলে তাদের অংশ সমভাবে ভাগ করে নেবেন। স্বামী/স্ত্রী এবং বা-মার অংশ দেওয়ার পর যা থাকবে তা সম্পূর্ণ মৃত ব্যক্তির ছেলে বা ছেলে, ছেলের ছেলে এভাবে যত নিচেই হোক তারা অবশিষ্টভোগী হিসেবে পাবে। ছেলের সঙ্গে মেয়ে থাকলে প্রত্যেক কন্যা প্রত্যেক ছেলের (১/২) অর্ধেক হারে পাবে। যদি মৃত ব্যক্তির শুধু এক কন্যা থাকে তবে তিনি মোট সম্পত্তির (১/২) অর্ধেক পাবে। আর যদি একাধিক কন্যা থাকে তবে সবাই মিলে (২/৩) দুই তৃতীয়াংশ পাবে।

আমাদের আর্টিকেলটিতে আমরা বিভিন্ন প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন পিকচার তুলে ধরেছিআপনি যদি মেডিসিন টি সংগ্রহ করতে চান তাহলে আর্টিকেল আদালতে সকল নাম্বার গুলো রয়েছে সেগুলো তো ফোন করে মেডিসিন সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে অর্ডার করে দিতে পারেন আপনার প্রয়োজনীয় মেডিসিন আমাদের প্রতিনিধি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পৌঁছে যাবে আপনার ঠিকানায় ধন্যবাদ।

আমাদের আর্টিকেলটিতে পেটের ফাটা দাগ দূর করার একটি পণ্য রয়েছে যেটি আপনারা চাইলে ক্রয় করতে পারেন আমাদের এই পণ্যটির ব্যবহার করার ফলে আপনি পেটের ফাটা দাগ দূর করতে পারবেন । তাই আপনি যদি পেটের ফাটা দাগ দূর করতে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের এই পণ্যটি ব্যবহার করতে হবে আর আমাদের পণ্যটি ক্রয় করার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে ।
আমাদের এই আর্টিকেলটিতে আমরা তুলে ধরেছি কিছু তথ্য যা সংগৃহীত এবং আমাদের নিজস্ব ভাষায় উপস্থাপিত স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে এই আর্টিকেল সম্পর্কে আপনার প্রশ্ন কিংবা জিজ্ঞাসা থাকলে আমাদেরকে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “স্বামী মারা গেলে সম্পত্তির ওয়ারিশ হবে”

Your email address will not be published. Required fields are marked *