অক্সিটোসিন হরমোন

1,950.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913640

>> সারাদেশে ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয় !

>> ডেলিভারি খরচ ঢাকার মধ্যে ৬০ ঢাকার বাইরে  ১০০ টাকা !

>> প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে চেক করে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন !

>> ডেলিভারি খরচ সাশ্রয় করতে একসাথে কয়েকটি প্রোডাক্ট অর্ডার করুন !

999 in stock

SKU: (11) ৩০ মিনিটের মতো সেক্স করার কনডম (মডেল-126) Categories: , Tag:

Description

অক্সিটোসিন হরমোন অক্সিটোসিন হল স্তন্যপায়ী প্রাণীদের দেহে প্রাপ্ত একটি হরমোন। এটি স্তন্যপায়ীদের মস্তিষ্কে কাজ করে। মানবদেহে এটি নারীদের প্রজননের সময় নির্গত হয়, বিশেষ করে সন্তান প্রসবের সময় এবং প্রসবের পরে। আরো পড়ুন: ছেলেদের মেয়েদের কন -ডম গুপ্ত –  স্থান মেয়েদের পু -শি  কিনতে এখনই কিনুন

অক্সিটোসিন হরমোন

অক্সিটোসিন হল একটি পেপটাইড হরমোন এবং নিউরোপেপটাইড সাধারণত হাইপোথ্যালামাসে উত্পাদিত হয় এবং পোস্টেরিয়র পিটুইটারি দ্বারা নির্গত হয়। বিবর্তনের প্রাথমিক পর্যায় থেকে প্রাণীদের মধ্যে উপস্থিত, মানুষের মধ্যে এটি আচরণে ভূমিকা পালন করে যার মধ্যে সামাজিক বন্ধন, প্রজনন, সন্তানের জন্ম এবং প্রসবের পরের সময় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

অক্সিটোসিন নামক এই বিখ্যাত হরমোনটি হল প্রেমের হরমোন যা মানুষের আচরণের বৈশিষ্ট্যকে প্রভাবিত করে এবং তাদের মধ্যে সহানুভূতি, ভালবাসা, উদারতা, যৌন প্রবণতা এবং বন্ধনের মতো স্বভাবগত বৈশিষ্ট্যগুলিকে জাগায়।

এই হরমোন মানবিক গুণ (স্নেহ, মমতা, ভালবাসা) বৃদ্ধির সহায়ক। সন্তান প্রসবের পর, নারী মনে যে সন্তানস্নেহ তীব্ররূপে বিরাজ করে, তার পিছনে এই হরমোনটি সক্রিয় থাকে। শুধু মানুষ নয়, যে কোনো স্তন্যপায়ী প্রাণী এই হরমোনের প্রভাবে সন্তানকে রক্ষা করে। এই হরমোন পারস্পরিক এবং পর্যায়ক্রমিক কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে প্রসূতি এবং সন্তানের কল্যাণ করে। যেমন প্রসবের পর পরই এই হরমোনের প্রভাবে নারী মনে সন্তানস্নেহ তীব্রতর হয়ে উঠে। এর ফলে মা তাঁর শিশুকে গভীরভাবে আদর করতে আগ্রহী হয়ে উঠে। এর ফলে মাতৃস্তনে দুধের আধিক্য ঘটে। মা যখন শিশুকে স্তনদান করেন, তখন গভীর ভালোভাষার কারণে অক্সিটোসিনের নির্গমণ বৃদ্ধি পায়। এর ফলে জরায়ু স্বাভাবিক দশায় পৌছানোর জন্য সংকুচিত হতে থাকে। এবং জরায়ু থেকে রক্ষক্ষরণও বন্ধ হয়ে যায়।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “অক্সিটোসিন হরমোন”

Your email address will not be published. Required fields are marked *