সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি

2,250.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913639

>> সারাদেশে ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয় !

>> ডেলিভারি খরচ ঢাকার মধ্যে ৬০ ঢাকার বাইরে  ১০০ টাকা !

>> প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে চেক করে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন !

>> ডেলিভারি খরচ সাশ্রয় করতে একসাথে কয়েকটি প্রোডাক্ট অর্ডার করুন !

309 in stock

Description

 

সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি সম্পর্কে অনেকেই আমাদের কাছে বিস্তারিত জানার আগ্রহ প্রকাশ করে থাকেন তাই আজকের আর্টিকেলটি সাজিয়েছি এমন ভাবে যে আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন সহবাস করার সঠিক পদ্ধতি অথবা কিভাবে সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি সম্পর্কে এছাড়াও আপনি কিভাবে সহবাস করলে আপনার সঙ্গিনীকে বেশি তৃপ্তি দিতে পারবেন এছাড়া কোন পদ্ধতিতে সহবাস করা উচিত ইসলামিক পদ্ধতিতে সহবাস করবেন এবং ইসলামিক পদ্ধতি বিস্তারিত আলোচনা করেছি।১ মাসের বাচ্চা নষ্ট করার ট্যাবলেট এর নাম

সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি

সহবাস হচ্ছে স্বামী স্ত্রী যখন অফ একে অপরে তাদের নিজেদের সর্বোচ্চ যৌন মিলন অথবা যে মিলনটা ঘটে এটা কি সহবাস বলা হয় এবং ইসলামের শরীয়ত মোতাবেক অনুযায়ী যেটি আপনাকে হালালভাবে যখন স্বামী স্ত্রী ক্লোজ হয় এবং তারা সঙ্গম করে সেটা কি সহবাস বলা হয়।

ইসলামে বলা হয়ে থাকে হালাল ভাবে সহবাস করতে হালালভাবে সহবাস করার জন্য যে পদ্ধতিগুলো ব্যবহার করতে হয় এছাড়াও আপনাকে যখন হালালভাবে অথবা সঠিকভাবে সহবাস করতে চাইবেন তখন আপনি অবশ্যই আপনার সঙ্গিনীকে আপনার বিবাহ ইসলামিক অনুযায়ী নিয়ম অনুযায়ী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে তারপর তাকে দেনমোহর পরিশোধ করে তার সাথে সহবাসে লিপ্ত হতে হবে।

আরবিতে নিয়ত করতে হবে এমনটা নয়। নিয়ত মানে মনোস্থির করা। মনে মনে এই কামনা করা যে, আমি সাওয়াব অর্জনের উদ্দেশ্য আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যে সহবাস করবো। এর মাধ্যমে নিজেকে হারাম থেকে বিরত রাখবো এবং সন্তান লাভের আশা থাকবে। হাদিসে আছে, স্ত্রী সহবাসও সাদকা। এর মাধ্যমে সাওয়াব বা নেকি লাভ করা যায়।

ইসলামে সহবাসের সময় স্বামী-স্ত্রী একে অপরকে আদর করার কথা বলা হয়েছে। হাদিসে এই আদর সোহাগের ব্যাপারে উৎসাহিত করা হয়েছে। যৌন মিলনকে মধুর করতে যত উপায় আছে যেকোনভাবে তা করা যাবে। স্বামী চুম্বন, আলিঙ্গন, মর্দন ইত্যাদির মাধ্যমে স্ত্রীকে আদর করবে। তেমনি স্ত্রীও স্বামীকে আদর-সোহাগ করবে। এক্ষেত্রে উভয়ের Response বা সাড়া দেওয়া খুবই জরুরী। একে অপরকে মিলনের জন্য আগ্রহী করে তুলবে। পুরুষের মেয়েদের সেক্স বৃদ্ধি করার হোমিও ঔষধ কিনতে ক্লিক করুনএখনি কিনুন 

দিনে সহবাস করা যায় কি

হ্যাঁ অবশ্যই দিনে সহবাস করতে পারবেন সে ক্ষেত্রে আপনার স্ত্রী যখন আপনি হালাল ভাবে আপনি সহবাস করতে যাবেন তখন দিনের বেলায় আপনি সহবাস করতে পারবেন এক্ষেত্রে কোন বাধ্যবাধকতা নেই তবে সে ক্ষেত্রে আপনার কিছু নিয়ম মাত্রা হবে যেমন ইত্তেক কাফের সময় সহবাস করা যাবেনা হজ্জের ইহরাম বাধা অবস্থায় এবং স্ত্রী গর্ভপাতের 40 দিন সময় পর্যন্ত সহবাস করতে পারবেন না রোজা রাখা অবস্থায় আপনি সহবাস করতে পারবেন না এই কিছু কিছু নিয়ম মেনে যদি আপনি সহবাস করতে চান তবে অবশ্যই সহবাস করতে পারবেন।

1.ইত্তেকাফের সময়,
2. হজ্জের ইহরাম বাঁধা অবস্থায়,
3.স্ত্রীর গর্ভপাতের ৪০ দিন সময় পর্যন্ত

উপরোক্ত সময়গুলো ছাড়া অন্যযেকোন সময় যৌন মিলন করা যাবে। এক্ষেত্রে পূর্ণিমা, আমাবস্যা, দিনের বেলা, শুক্রবার, ঈদের দিনে, ঈদের রাতে, শবে বরাতে, শবে কদরের রাতে ইত্যাদি সময় সহবাস করা যাবে এবং তা বৈধ বা হালাল। এতে কোনো ক্ষতি বা গোনাহ হবে না।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি”

Your email address will not be published. Required fields are marked *